Cricket Player Shubman Gill’s Biography (in Bengali)

Biography

Shubman Gill
Shubman Gill

শুবমান গিল (Shubman Gill) একজন ভারতীয় ক্রিকেটার। যিনি ভারতীয় ক্রিকেট টিমে জাতীয় স্তরে প্রতিনিধিত্ব করার সাথে সাথে পাঞ্জাবের ঘরোয়া দলে অর্থাৎ রাজ্য স্তরে ও তাঁকে খেলতে দেখা যায়। 2018 সালে অনুরদ্ধ 19 -এর ক্রিকেট বিশ্বকাপে ভাইস ক্যাপ্টেন হিসাবে খেলেন এবং প্লেয়ার অফ টুর্নামেন্টের খেতাব জেতেন। এই ডানহাতি ব্যাটসম্যানকে কম বয়সী শ্রেষ্ট খেলোয়ারদের মধ্যে একজন হিসাবে ধরা হয়। জাতীয়স্তরের একদিনের ক্রিকেটে সবচেয়ে কম বয়সী ডাবল সেঞ্চুরির এবং T20 ক্রিকেটে ভারতীয় দলের সবথেকে বেশি স্কোরের খেতাব এই প্লেয়ারের পকেটে।

২০১৮ সালের অনূরদ্ধ 19 এর বিশ্বকাপে তিনি ভাইস ক্যাপ্টেন হিসাবে খেলেছিলেন শুধু তাই নয়। তিনি পুরো টুর্নামেন্টে 372 রান করেন 124 এর গড় অনুপাতে। যেখানে তিনি তিন নম্বরের মতো গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ব্যাট করেছিলেন। অনুরদ্ধ 19 এর বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে পাকিস্থানের বিরুদ্ধে তাঁর 102 নট আউট সত্যি মহান ব্যাটস ম্যান দের কথা মনে করিয়ে দেয়।

2022-এর আই পি এল – এর গুজরাট টাইটান টিমের অন্তর্গত ছিলেন শুবমান গিল (Shubman Gill)। 2023-এ গিল (Gill) অরেঞ্জ ক্যাপ জেতেন, তিনটি সেঞ্ছুরির মাধ্যমে 830 রান করেন যা পুরো আই. পি. এল ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বচ্চো রান।

শুবমান গিলের শৈশব। Childhood of Shubman Gill

Child Shubman Gill
Child Shubman Gill

শুভমান গিল (Shubman Gill) এর জন্ম ৮ সেপ্টেম্বর ১৯৯৯ (8th September, 1999) পাঞ্জাবের ফাজলিকা শহরের একটি শিখ ফ্যামিলিতে। বাবা লখউইন্দর সিং একজন কৃষিজীবী তাঁর ও স্বপ্ন ছিল একজন ক্রিকেটার হওয়ার। তিনি একান্তভাবে সচেষ্ট হন শুবমান গিল (Shubman Gill) কে একজন ক্রিকেটার তৈরী করার জন্য। শুভমান গিল (Shubman Gill) এর ছোটবেলা তেই ক্রিকেট খেলার ধরন তাঁর বাবার চোখে পড়ে এবং বাবা তাঁর খেলাকে স্বাগত জানিয়ে ক্রিকেট খেলা কে সৌভাগ্যে রূপান্তরিত করার চেষ্টায় লেগে পড়েন। গিল (Gill) এর বাবা গিলের (Gill)-এর প্রতিভার উপর পুরো বিশ্বাসী ছিলেন তাই তিনি মোহালিতে একটি ঘর ভাড়া নিয়ে সেখানে বাস করতে চলে আসেন ছেলেকে খেলা শেখাতে। গিল (Gill)-এর বাবা বলেন তিন বছর বয়স থেকেই গিল (Gill) খুবি উৎসাহী ছিলেন ক্রিকেট খেলার প্রতি এবং তিনি তিন বছর বয়স থেকে শুধু ক্রিকেটই খেলতেন যদিও এই সময় অন্য বাচ্ছারা বিভিন্ন খেলনা নিয়ে খেলে, কিন্তু গিল (Gill) – এর ক্ষেত্রে এসব কোন কিছু ছিলনা কক্ষনো, খেলা বলতে ব্যাট আর বল।

অনূর্ধ্ব ১৬ রাজ্যস্তরের খেলায় পাঞ্জাবে বিজয় মার্চেন্ট ট্রফিতে টিমের হয়ে ডাবল সেঞ্চুরি করেন 2014 সালে।

শুবমান গিলের ব্যাক্তিগত জীবন। Personal Life of Shubman Gill.

শুভমান গিল (Shubman Gill) এর বাবা লখউইন্দর সিং, মা – কিয়ারত গিল (Keart Gill), বোন- শাহনীল গিল (Shahneel Gill। লখউইন্দর সিং তাঁর ছেলে শুবমান গিল-এর খেলার জন্য নিজের কৃষি কাজের যায়গায় একটা ক্রিকেট খেলার মাঠ তইরী করেন যেখানে পাড়ার অন্যান্য ছেলেদেরকে ও খেলতে তিনি উতসাহিত করতেন। লখউইন্দর সিং এর বক্তব্য অনুযায়ী তাঁর ছেলের প্রফেসানাল ক্রিকেট শেখার উদ্দ্যেশ্যেই তিনি তাঁর গ্রামের কৃষি কাজ ছেড়ে। যদিও কৃষি কাজের প্রতি গিল ও বাবার একই ভাবে আকর্ষণ অনুভব করেন।

Family Photo of Shubman Gill
family Photo of Shubman Gill
নামশুবমান গিল (Shubman Gill)
ডাক নামশুবমান গিল (Shubman Gill)
বাবালখউইন্দর সিং (Lakhwinder Singh)
মাকিয়ারত গিল (Keart Gill)
বোন/দিদিশাহনীল গিল (Shahneel Gill)
জন্ম স্থানফাজলিকা, পাঞ্জাব, ভারত
জন্ম৮ সেপ্টেম্বর ১৯৯৯ (8th September, 1999)
উচ্চতা১৭৮ সে. মি. ৫ফুট ১০ ইঞ্চি
ওজন৬৫ কেজি
জিবীকাভারতীয় ক্রিকেটার (ডানহাতি ব্যাটস ম্যান)
ধর্মশিখ
জাতীয়তাভারতীয়
চোখের রংকালো
চুলের রংকালো

শুবমান গিলের ক্রিকেট জীবন।Cricket Career of Shubman Gill.

গিলের একাগ্রতা, উতসাহ, প্রচেস্টা তাকে একজন ভালো ক্রিকেটারে রূপান্তরিত করেছে। গিল অনেক কম বয়স থেকে ভারতীয় ক্রিকেটে প্রতিনিধিত্ব করছেন। আজকে ক্রিকেটে তাঁর এই শিখরে পৌঁছানো দেখে এটা ভাবলে ভূল হবে যে, কোন শর্টকাট বা সৌভাগ্য বসত তিনি এই জায়গায় পৌঁছেছেন। গিলের ক্রিকেট প্রতিভা জুনিয়র টিমে থেকেই লক্ষ্যনিয় ছিল, যেখানে তাঁর পরিপূর্ণতা ছিল বয়সের তুলনায় অনেক বেশি। যাইহোক আমরা একনজরে তাঁর পারফরমেন্স দেখে নিই।

ঘরোয়া ক্রিকেটঃ-

এখানে ঘরোয়া ক্রিকেট বলতে আমরা রাজ্য স্তরের খেলাকে বলতে চেয়েছি, রাজ্য স্তরের খেলার মধ্যে আমরা তাঁকে প্রথম ২০১৬-১৭ সালে বিজয় হাজারে ট্রফিতে দেখতে পাই এবং তারপর রঞ্জি ট্রফি ২০১৭-১৮ যেখানে ১২৯ রানের অনবদ্য খেলা বাংলার বিরুদ্ধে। ২০১৮-১৯ এ দেওধর ট্রফি এবং রঞ্জি। এই রঞ্জি ট্রফিতে তিনি ডাবল সেঞ্চুরি করেন যেখানে তাঁর রান ছিল ২৬৮। ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮ রঞ্জি ট্রফি তে হায়দ্রাবাদের বিরুদ্ধে পাঞ্জাবের দরকার ছিল ৩৩৮ রান সেখানে গিল একাই করেন ১৪৮ রান ১৫৪ বলে। ২০১৮-১৯ রঞ্জি ট্রফি তে ৫ টা ম্যাচে ৭২৮ রান করেন শুবমান গিল। এটাই ছিল সরবচ্চো রান এই রঞ্জির।

২০১৯ আগষ্টে, ২০১৯-২০ ডিউলিপ ট্রফির ক্যাপ্টেন হিসাবে শুবমান গিল নির্বাচিত হন। এরপর ওই একই বছর দেওধর ট্রফির জন্য ভারতের সি টিমের ক্যাপ্টেন হিসাবে নির্বাচিত হন।

জাতীয় ক্রিকেটঃ-

India Vs Newziland 4th ODI

গিল যেমন রাজ্য স্তরের খেলায় উল্লেখ্য যোগ্য অবদান রেখেছেন তেমনই জাতীয় স্তরে কিন্তু তিনি সমান তালেই তাল রেখেছেন। ২০১৭ সালে ভারতীয় দলের অনূর্ধ্ব ১৯ এ তিনি যোগ দান করেন এবং ডিসেম্বর ২০১৭ ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে জয়ে তাঁর অবদান মুল চাবিকাঠি হয়ে ওঠে। ২০১৮ অনূর্ধ্ব ১৯ টিমের বিশ্বকাপে তাঁকে ভাইস ক্যাপ্টেন মনোনীত করা হয়।

৩১ শে জানুয়ারি ২০১৯ তিনি একদিবসিয় ম্যাচ খেলেন ভারতীয় টিমের হয়ে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে। আগস্ট ২০১৯ সবথেকে কম বয়সী ডাবল সেঞ্চুরি করা ভারতীয় প্লেয়ার হিসাবে নিজের রেকর্ড তৈরী করেন ২০৪ রান করে ওয়েস্টেন্ডিজ এর বিরুদ্ধে। ২০১৯ নিউজিল্যান্ড টুরে তাঁকে ভারতীয় “এ” টিমের ক্যাপ্টেন নির্বচন করা হয়।

২০২০ সালে টেস্ট সিরিজের সেকেন্ড ম্যাচে, অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ভারতীয় টিমকে জয়লাভ করতে সাহাজ্য করে। তাঁর ৯১ রান ভারতীয় টিমকে ওই সিরিজের চতুর্থ ম্যাচ জেতায়। প্রথম সেঞ্চুরি ২২ আগষ্ট ২০২২ ভারতীয় জাতীয় দলের এক দিবসিয় ক্রিকেটে একটা মাইল স্টোন তৈরী করেন গিল। ১৬ ডিসেম্বর ২০২২ বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ১১০ করে টেস্ট সিরিজে প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরির রেকর্ড করেন।

১৮ জানুয়ারি ২০২৩ শে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ডাবল সেঞ্চুরি করা ৫ম ভারতীয় এবং সবথেকে কম বয়সী ডাবল সেঞ্চুরি করা ব্যাটসম্যানের খাতায় নিজের নাম তোলেন।

১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি২০ ফরম্যাটে সেঞ্চুরি করে ৫ম ভারতীয় ব্যটসম্যান যারা জাতীয় স্তরের ক্রিকেটে সমস্ত ফরম্যাটে সেঞ্চুরি করেছেন তাদের মধ্যে একজন হয়ে ওঠেন এছাড়াও ৬৩ বলে ১২৬ রান করে ভারতীয় টি২০ ক্রিকেটে একা সর্বচ্চো রান করার খেতাব অর্জন করেছেন।

আই পি এল -এ শুবমান গিল। Shubman Gill in IPL.

শুবমান গিল আই পি এল -এ এখন পর্যন্ত ৯৩ টা ম্যাচ খেলেন যেখানে তিনি টোটাল ২৭৯০ রান করেন। এর মধ্যে তিন টি সেঞ্চুরি এবং ১৮ টি হাফ সেঞ্চুরি বা অর্ধ শতক আছে। টি২০ ফরম্যাটে সর্বচ্চো স্কোর ১২৯ রান এবং ৪৭৩ টি চার এবং ৮০ টি ছয় তাঁর খাতায় বিদ্যমান।

আই পি এল ইতিহাসঃ-

টিম/দলবছরদামসিরিজের টোটাল রান
কলকাতা নাইট রাইডারস২০১৮১.৮০ কোটি২০৩
কলকাতা নাইট রাইডারস২০১৯১.৮০ কোটি২৯৬
কলকাতা নাইট রাইডারস২০২০১.৮০ কোটি৪৪০
কলকাতা নাইট রাইডারস২০২১১.৮০ কোটি ৪৭৮
গুজরাট টাইটানস২০২২৮.০০ কোটি৪৮৩
গুজরাট টাইটানস২০২৩৮.০০ কোটি ৮৯০

শুবমান গিলের গাড়ি। Car Collection of Shubman Gill

শুবমান গিলের সঞ্চয়ে এখন পর্যন্ত তিনটি খুবই মুল্যবান গাড়ি যার একটি ও যেকোনো ২৩ / ২৪ বছরের যুবকের কাছে অবশ্যই স্বপ্নের। যাইহোক শুবমান গিলের সঞ্চয়ের প্রথম গাড়ি মহেন্দ্রা থার। পরেরটা প্রিমিয়াম এস ইউ ভি, র‍্যাঞ্জ রোভার ভেলার এবং তৃতীয় মারসিডিজ-বেঞ্জ E350.

মাহিন্দ্রা থার (Mahindra Thar)১৭ লাখ
র‍্যাঞ্জ রোভার ভেলার (Range Rover Velar)৮৯ লাখ
মারসিডিজ-বেনজ E350 (Mercedes-Benz E350)৮৮ লাখ
Relate link:-
Twitter of Shubman Gill – https://twitter.com/ShubmanGill
Instagram of Shubman Gill – https://www.instagram.com/shubmangill

Our Link for another Post

Jaya Kishori

Abdu Rozik

Leave a Comment